1. [email protected] : admin : jashim sarkar
  2. [email protected] : admin_naim :
  3. [email protected] : admin_pial :
  4. [email protected] : admin : admin
  5. [email protected] : Rumana Jaman : Rumana Jaman
  6. [email protected] : Saidul Islam : Saidul Islam
পিকে হালদারের আত্মসাতের ৩ হাজার কোটি টাকা জব্দ |ভিন্নবার্তা

পিকে হালদারের আত্মসাতের ৩ হাজার কোটি টাকা জব্দ

vinnabarta.com
  • প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ১৩ অগাস্ট, ২০২০, ০৮:০৫ অপরাহ্ন

পিপলস লিজিং কোম্পানি থেকে আত্মসাৎ করা রিলায়েন্স ফাইন্যান্স লিমিটেডের সাবেক ব্যবস্থাপনা পরিচালক প্রশান্ত কুমার (পিকে হালদার) হালদারের ৩ হাজার কোটি টাকা ফ্রিজ (জব্দ) করেছে দুদক।

টাকাগুলো ফ্রিজ করার জন্য বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ ব্যাংকে চিঠি দিয়েছেন অনুসন্ধানকারী কর্মকর্তা দুদকের উপ-পরিচালক মো. গুলশান আনোয়ার প্রধান।

চিঠিতে বলা হয়, পিকে হালদার রিলায়েন্স ফাইন্যান্সে এমডি থাকা অবস্থায় তার আত্মীয়স্বজনকে দিয়ে আরও বেশ কয়েকটি লিজিং কোম্পানির স্বতন্ত্র পরিচালক বানান এবং একক কর্তৃত্বে অদৃশ্য শক্তির মাধ্যমে পিপলস লিজিংসহ বেশ কয়েকটি লিজিং কোম্পানির টাকা বিভিন্ন কৌশলে বের করে আত্মসাৎ করেন। পিপলস লিজিংয়ের আমানতকারীদের ৩ হাজার কোটি টাকা বিভিন্ন কৌশলে আত্মসাৎ করেন এবং ওই কোম্পানিকে পথে বসিয়েছেন। এসব কোম্পানির স্থাবর সম্পদ বিক্রি করে দেন এবং আমানতকারীদের শেয়ার পোর্টফোলিও থেকে শেয়ার বিক্রি করে সমুদয় টাকা আত্মসাৎ করেন।

এ সংক্রান্ত বিষয়ে পিপলস লিজিং, ইন্টারন্যাশনাল লিজিংসহ পিকে হালদার সংশ্লিষ্ট লিজিং কোম্পানি থেকে রেকর্ডপত্র সংগ্রহ করা হয়েছে। ইতোমধ্যে বাংলাদেশ ফাইন্যান্সিয়াল ইন্টেলিজেন্স ইউনিট (বিএফআইইউ) থেকে পিকে হালদার ও তার স্বার্থ সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানের অর্থ আত্মসাৎ সংক্রান্ত সব নথি এবং গোয়েন্দা প্রতিবেদন সংগ্রহ করা হয়েছে বলেও জানানো হয় ওই চিঠিতে।

প্রসঙ্গত, ২০১৪ সালে হঠাৎ করেই চারটি ব্যাংকবহির্ভূত আর্থিক প্রতিষ্ঠানের (এনবিএফআই) মালিকানায় পরিবর্তন আসে। প্রথমে আড়ালে থাকলেও পরে পিকে হালদার ও তার নামসর্বস্ব কয়েকটি কোম্পানি প্রতিষ্ঠানগুলোর মালিকানায় যুক্ত হয়।

এর কয়েক বছরের মধ্যে ঋণের নামে চারটি আর্থিক প্রতিষ্ঠান থেকেই হাজার কোটি টাকা বের করে নেয়া হয়। এ কারণে চারটি প্রতিষ্ঠানই এখন ধুঁকছে। ইতিমধ্যে একটি প্রতিষ্ঠানকে দেউলিয়া ঘোষণা করা হয়েছে। বাকি তিনটিও গ্রাহকদের টাকা ফেরত দিতে পারছে না।

এদিকে, বিআর ইন্টারন্যাশনাল লিমিটেড, নেচার এন্টারপ্রাইজ লিমিটেড, নিউটেক এন্টারপ্রাইজ লিমিটেড, হাল ইন্টারন্যাশনাল লিমিটেড, নিউট্রিকাল লিমিটেড, আরবি এন্টারপ্রাইজ, আনান কেমিক্যাল, রিপটাইলস ফার্ম লিমিটেড, পি অ্যান্ড এল ইন্টারন্যাশনাল, আর্থস্কোপ লিমিটেড, এমটিবি মেরিন লিমিটেড, কোলাসিন লিমিটেড, এমএসটি ফার্মা অ্যান্ড হেলথকেয়ার লিমিটেড, ওকায়ামা লিমিটেড, জি অ্যান্ড বি এন্টারপ্রাইজ, দ্রিনান অ্যাপারেল্স লিমিটেড, মুন এন্টারপ্রাইজ, কনিকা এন্টারপ্রাইজ, সিগমা ক্যাপিটাল ম্যানেজমেন্ট লিমিটেড, আইমেক্সো, সুখাদা প্রোপার্টিজ লিমিটেড, সন্দ্বিপ কর্পোরেশন, উইন্টেল ইন্টারন্যাশনাল লিমিটেড, পদ্মা ওয়েভিং লিমিটেড, এমওএইচ ফ্যাশন লিমিটেড, এসএ এন্টারপ্রাইজ, শাদাত ট্রেডার্স, সাবির ট্রেডার্স লিমিটেড, গ্রিনলাইন ডেভেলপমেন্ট লিমিটেড, মেসার্স বরন্য, রহমান কেমিক্যালস লিমিটেড, ক্রসরোড কর্পোরেশনস লিমিটেড, তামিম অ্যান্ড তালহা ব্রাদার্স লিমিটেড, ডিজাইন্স অ্যান্ড সোর্স লিমিটেড, জেডএ অ্যাপারেল্স লিমিটেড, সুপারিয়র টেক্সটাইল লিমিটেড, নির্দার্ন জুট ম্যানুফ্যাকচারিং কোম্পানি লিমিটেড, সিমটেক্স ইন্ডাস্ট্রিজ অ্যান্ড সিমটেক্স টেক্সটাইল লিমিটেড এবং এমজে ট্রেডিংসহ আরও কারো অনুকূলে ঋণ বিতরণ করা হলে এসব ঋণের গ্রাহকের কেওয়াইসি, ঋণের প্রস্তাব, শাখার ঋণ সংক্রান্ত প্রস্তাব, ক্রেডিট কমিটির অনুমোদন, বোর্ড মেমো- যেখানে এ সংক্রান্ত সব কর্মকর্তা ও বোর্ডের সদস্যদের স্বাক্ষর রয়েছে এবং এ প্রতিষ্ঠান থেকে শেয়ার ক্রয়-বিক্রয় সংক্রান্ত ব্রোকারেজ হাউজ/এসেট ম্যানেজমেন্ট কোম্পানির অনুকূলে ঋণ বিতরণ বিষয়ে শাখা থেকে এ সংক্রান্ত বিষয় বোর্ডে উপস্থাপন এবং বোর্ডে সেংশন, বোর্ড মেমোসহ যেখানে এ সংক্রান্ত সব অফিসার ও বোর্ডের সদস্যদের স্বাক্ষর রয়েছে এ সংক্রান্ত রেকর্ডপত্রাদি চেয়ে গত ১২ আগস্ট চিঠি দেয়া হয়েছে।

এসব প্রতিষ্ঠানে ঋণ দেয়ার বিষয়ে সরেজমিন পরিদর্শন করার জন্য ওই প্রতিষ্ঠানের (রিলায়েন্স ফাইন্যান্স) এভিপি আল মামুন সোহাগ, সিনিয়র ম্যানেজার মো. রাফসান রিয়াদ চৌধুরীকে আগামী ২৫ আগস্ট দুপুর ১২টায় দুদকে উপস্থিত হওয়ার জন্য চিঠি দেয়া হয়েছে।

এছাড়া এ বিষয়ে দুদকে হাজির হয়ে বক্তব্য দেয়ার জন্য আরও ৯ জনকে নোটিশ দেয়া হয়েছে। তারা হলেন- হাল ইন্টারন্যাশনাল লিমিটেড অ্যান্ড নিউট্রিকাল লিমিটেডের পরিচালক স্বপন কুমার মিস্ত্রিকে ১৮ আগস্ট সকাল সাড়ে ১০টায়, হাল ইন্টারন্যাশনাল লিমিটেড অ্যান্ড নিউট্রিকাল লিমিটেডের পরিচালক কাজী মমরেজ মাহমুদকে ১৮ আগস্ট সাড়ে ১০টায়, হাল ইন্টারন্যাশনাল লিমিটেডের পরিচালক প্রিতিশ কুমার হালদারকে ১৮ আগস্ট সাড়ে ১০টায়, হাল ইন্টারন্যাশনাল লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সুস্মিতা সাহাকে ১৮ আগস্ট দুপুর সাড়ে ১২টায়, হাল ইন্টারন্যাশনাল লিমিটেডের পরিচালক অমিতাভ অধিকারীকে ১৮ আগস্ট দুপুর সাড়ে ১২টায়, আরবি এন্টারপ্রাইজের প্রোপাইটর রতন কুমার বিশ্বাসকে ১৯ আগস্ট সকাল সাড়ে ১০টায় উপস্থিত থাকতে বলা হয়েছে।

আনান কেমিক্যালের পরিচালক উজ্জ্বল কুমার নন্দীকে ১৮ আগস্ট দুপুর ১টা ৩০ মিনিটে, আনান কেমিক্যালের পরিচালক অনিতা করকে ১৮ আগস্ট দুপুর ১টা ৩০ মিনিটে, রিপটাইলস ফার্ম লিমিটেডের চেয়ারম্যান শিমু রয়কে ১৯ আগস্ট বেলা সাড়ে ১১টায় দুদকে হাজির হতে বলা হয়েছে।

এ বিষয়ে বক্তব্য দেয়ার জন্য ইন্টারন্যাশনাল লিজিংয়ের সাবেক চেয়ারম্যান এমএ হাশেম, সাবেক ব্যবস্থাপনা পরিচালক রাশেদুল হকসহ বর্তমান বোর্ড অব ডিরেক্টরসকে বক্তব্য দেয়ার বিষয়ে শীঘ্রই নোটিশ দেয়া হবে বলেও দুদক জানিয়েছে।

এছাড়া মোট সাড়ে তিন হাজার কোটি টাকা আত্মসাৎ ও মানি লন্ডারিংয়ের মামলা শিগগিরই দায়ের করা হতে পারে বলেও দুদক জানিয়েছে।

ভিন্নবার্তা/এমএসআই

আরো পড়ুন

মাসিক আর্কাইভ

© All rights reserved © 2021 vinnabarta.com
Customized By Design Host BD