শিরোনাম

বিশেষ রজনীর প্রার্থনা
গোসল-জানাজা ছাড়া কবরে যেতে চাই না

এসবি মিলন :

আজ পবিত্র লাইলাতুল বরাত। এক মহিমান্বিত রজনী। এই রজনীতে আল্লাহ তার বান্দাদের জন্য সৌভাগ্য নাজিল করেন। মুসলমানরা আল্লাহর সান্নিধ্যের জন্য মসজিদে গিয়ে রাত জেগে নফল ইবাদত করে থাকেন। পৃথীবিতে এই অবস্থা (রেওয়াজ) চলছে হাজার বছর ধরে।

কিন্তু দুঃখের বিষয় হচ্ছে এবার সারাজাহানের মুসলমানরা মসজিদে গিয়ে নফল ইবাদত করতে পারবেন না। মহান আল্লাহ এই জমিনে এমন গজব নাজিল করলেন কেনো? এর উত্তর ঘুরে ফিরে আমাদেরকেই দিতে হবে।

আমরা অতিমাত্রায় মর্ডান হয়েছি। আমরা আমাদের ছেলে-মেয়েকে লন্ডন, আমেরিকা কানাডায় পড়াশুনার জন্য পাঠিয়ে অর্ধনগ্ন চলাফেরা শিখিয়েছি। আমরা ঘুষখোর। আমরা পরবিত্তলোভী, প্রতারক,সঠ, ধান্দাবাজ,হারমাইদ, কর্মে ফাঁকিবাজ আরো কত কী। আমরা দুই নম্বর ব্যবসায়ী, ওজনে কম দেই। ভালো পন্য থাকতেও আগে কাস্টমারকে পচাঁটা ধরিয়ে দেই। আমরা বক হাজি। মক্কায় গিয়ে হজ করে আসার পর সেটেলমেন্ট অফিসে গিয়ে দুই নম্বর পর্চা তৈরি করে গরীবের জমি রেকর্ড করে নেই। আমরা ভুয়া নামজারী করে আরেকজনের সম্পদ দখল করি, সীমানা ঠেলী।

আমরা চাটার দল। আমরা সরকারি বরাদ্দকৃত চাল-গম, টিআর,জিআর, কাবিখা, কাবিটা আত্মসাৎ করি। কেউ কেউ আত্মসাৎকারীদের কাছ থেকে কমিশন খাই। আমরা নোংরা ন্যাড়ো মাইন্ডের সমাজপতি। আমরা বয়স্ক-বিধবা প্রতিবন্ধী ভাতা প্রদানের নামে উৎকোচ খাই। আমরা লম্পট, পরের স্ত্রীর দিকে কু’নজর দেই। আমরা মদখোর,জুয়াচোর।

আমরা ভুয়া মুক্তিযোদ্ধা। বাবা শান্তি কমিটির নেতা হওয়ার সমাজ স্বীকৃতির পরও আমরা মুক্তিযোদ্ধার সনদ নিয়ে সরকারি ভাতা খাচ্ছি, সন্তানদের চাকরি দিচ্ছি মুক্তিযোদ্ধার কোটায়। আমরা খচ্চর। আমরা লজিং (গৃহশিক্ষক) থেকে ছাত্রীকে ভোগ করি। কোনো কোনো সময় গৃহকত্রীকে স্ত্রী হিসেবে গ্রহণ করি।

আমরা খাটাস। আমরা ঘুটামী করে ভালো মানুষকেও সমাজে অপরাধী বানিয়ে ফেলি। আমরা ডাক্তার। আমরা কমিশন লাভের আশায় বিনা প্রয়োজনে টেস্টের বন্যা বইয়ে দেই। আমরা উকিল মোক্তার, মামলা শেষ করিনা। আমরা ভুয়া সাংবাদিক। আমরা ক্লু কেস খুঁজে ধান্দাবাজী করি। আমরা রাজনীতি করি। আমরা প্রতিপক্ষকে শায়েস্তা করতে যা মনে চায় তাই করি। এই তো আমাদের জীবনে উত্তম চরিত্র। আল্লাহ গজব নাজিল করবে না কেন?

আসুন আজকের এই মহিমান্বিত রজনীতে ঘরের দরজা বন্ধ করে নফল ইবাদতে মশগুল হয়ে যাই। মনে প্রাণে প্রার্থনা করি। নিরব চিৎকার করে আল্লাহর নিকট তওবা করি। আল্লাহ আমাকে মাফ করো। এই নফল নামাজের উছিলায় তোমার বাংলার জমিন থেকে গজব মহামারী ‘করোনা ভাইরাস’ তুলে নাও। তোমার মুমিনদের বাঁচাও। আমরা গোসল-জানাজা ছাড়া কেউ কবরে যেতে চাই না।

লেখক: এসবি মিলন, সাংবাদিক ও সমাজকর্মী

সংবাদ সম্পর্কে আপনার মতামত দিন
আরো পড়ুুন