শিরোনাম

‘লকডাউন উঠিয়ে নিলে ভাইরাস প্রাণঘাতী হয়ে ফিরে আসবে’

করোনাভাইরাস মহামারীতে আক্রান্ত দেশগুলোকে হুশিয়ারি করে আগেভাগেই লকডাউনসহ বিধিনিষেধ উঠিয়ে নেয়ার ক্ষেত্রে সতর্ক হতে বলেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। আফ্রিকায় যার প্রভাব পড়তে শুরু করেছে বলেও সংস্থাটি সতর্কবার্তা দিয়েছে।-খবর বিবিসি ও রয়টার্সের

ইউরোপীয় কয়েকটি দেশ লাগাম কিছুটা হালকা করলেও জাতিসংঘের এই সংস্থাটি মতে, একই সময়ে বিধিনিষেধ উঠিয়ে নেয়া হলে মহামারী প্রাণঘাতী রূপ নিয়ে ফিরে আসবে। যদিও বেশ কয়েকটি দেশকে অর্থনৈতিক বিরূপ প্রভাবের বিরুদ্ধে লড়তে হচ্ছে।

জেনেভা থেকে এক ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলনে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার মহাপরিচালক টেড্রোস আধানম গেবরিয়াসুস এসব কথা বলেছেন।

তিনি বলেন, ইতালি, জার্মানি, স্পেন ও ফ্রান্সসহ বেশ কয়েকটি ইউরোপীয় দেশে মহামারীর গতি সন্তোষজনক ধীর গতিতে চলে গেছে। কিন্তু অন্যত্র তার ভয়াবহ বৃদ্ধি দেখা যাচ্ছে। যার মধ্যে আফ্রিকার ১৬টি দেশ রয়েছে। এসব দেশে সামাজিক সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়েছে।

বিধিনিষেধ হালকা করার ক্ষেত্রে কৌশল নির্ধারণে বিভিন্ন সরকারের সঙ্গে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা কাজ করছে জানিয়ে তিনি বলেন, কিন্তু সেটা খুব শিগগিরই করা যাবে না। কারণ বিধিনিষেধ আগাম উঠিয়ে নিলে ভাইরাসটি প্রাণঘাতী রূপ নিয়ে ফিরে আসবে।

জেনেভাভিত্তিক সংস্থাটির হিসাবে, বিশ্বে কোভিড-১৯ ভাইরাসে ১৫ লাখ মানুষ আক্রান্ত হয়েছেন। আর মৃত্যু লাখ ছাড়িয়ে গেছে।

শুক্রবার ইয়েমেন প্রথম করোনাভাইরাস সংক্রমণ ধরা পড়ে। দাতব্য সংস্থাগুলো সেখানে একটি মহামারীর প্রস্তুতি নিয়েছে। গত পাঁচ বছরের যুদ্ধে ইয়েমেনের স্বাস্থ্য ব্যবস্থা ইতিমধ্যে ভেঙে পড়েছে। ক্ষুধা ও রোগ আগেই ছড়িয়ে পড়েছিল।

স্বাস্থ্যকর্মীদের মধ্যে ব্যাপক সংখ্যক সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়ার ঘটনায় উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন টেড্রোস। তিনি বলেন, কোনো কোনো দেশে ১০ শতাংশ স্বাস্থ্যকর্মী করোনায় আক্রান্ত বলে খবর এসেছে। এটা একটি ভয়াবহ প্রবণতা।
ভিন্নবার্তা ডটকম/এসএস

সংবাদ সম্পর্কে আপনার মতামত দিন
আরো পড়ুুন