শিরোনাম
রাত পোহালেই শপথ, ভারী অস্ত্রে রাজপথে ট্রাম্প সমর্থকরাঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন ভবনে আগুনরোহিঙ্গা সংকট দ্রুত সমাধানে একমত চীন বাংলাদেশ মিয়ানমারধর্ষিতার ছবি প্রকাশে নিষেধাজ্ঞা চেয়ে হাইকোর্টে রিট২০০০ কোটি টাকা পাচার : কারাগারে ফরিদপুরের ২ চেয়ারম্যানট্রাম্পের প্রত্যাহারের ‘ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা’ বজায় রাখবেন বাইডেনমুজিবুর রহমান দিলুর মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রীর শোকদেশে আরও ২০ মৃত্যু, শনাক্ত ৭০২মুক্তিযোদ্ধাদের সংবর্ধনা দেবে আ.লীগের উপকমিটিকাতারের সঙ্গে মিসর ও আমিরাতের ফ্লাইট চালু কাতারের সঙ্গে সরাসরি ফ্লাইট চালু করেছে সংযুক্ত আরব আমিরাত ও মিসর। প্রতিবেশী দেশটির বিরুদ্ধে আরোপ করা অবরোধ সাড়ে তিন বছর পর চলতি মাসে উঠিয়ে নিয়ে সোমবার ফ্লাইট চলাচলও শুরু করেছে। দোহাভিত্তিক আল-জাজিরা এমন খবর দিয়েছে। ২০১৭ সালের জুনে হঠাৎ করে কাতারের বিরুদ্ধে অবরোধ করে সৌদি আরব, সংযুক্ত আরব আমিরাত ও মিসর। পরে যুক্তরাষ্ট্রের বিদায়ী প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের চেষ্টায় গত ৫ জানুয়ারি তারা অবরোধ তুলে নিতে রাজি হয়। উপসাগরীয় ছোট্ট দেশটির বিরুদ্ধে সন্ত্রাসবাদে উসকানি ও ইরানের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ সম্পর্কের অভিযোগ তোলা হয়েছিল। এরপর কাতারের সঙ্গে সব ধরনের অর্থনৈতিক ও কূটনৈতিক সম্পর্ক ছিন্ন করার ঘোষণা দিয়েছে তারা। এসব অভিযোগ অস্বীকার করে কাতার বলছে, অন্যায়ভাবে এই সম্পর্ক ছিন্ন করা হয়েছে। চলতি মাসের শুরুতে উপসাগরীয় সম্মেলনে অবরোধ উঠিয়ে নিতে একটি ঘোষণায় সই করে এসব দেশ। এবার তারা কাতারের সঙ্গে আকাশপথ খুলে দেওয়ার কথাও জানিয়েছে। তিন লাখের মতো মিসরীয় কাতারকে নিজেদের বাড়ি বলে মনে করেন। কিন্তু এই সংকটের সময় তারা দেশটিতে ভ্রমণ করতে পারেননি। অবরোধ উঠিয়ে নেয়ায় বেজায় খুশি হয়েছেন মিসরীয় প্রকৌশলী মোস্তফা আহমেদ। তিনি বলেন, সরাসরি ফ্লাইট চালু হওয়ায় জীবন আরও সহজ হবে। এর আগে ঘুরপথে সফর করতে তাদের বেশ ঝামেলা পোহাতে হতো।

করোনায় মৃত্যুপুরী বিশ্ব
প্রাণহানি ১ লাখ ৬০ হাজার ছাড়াল

ওয়ার্ল্ডওমিটার :

মহামারী করোনাভাইরাসে মৃত্যুর মিছিল বেড়েই চলেছে।কিছুতেই নিয়ন্ত্রণে আসছে না লাশের সারি।কোভিড-১৯ এ আক্রান্ত হয়ে বিশ্বে মৃতের সংখ্যা ১ লাখ ৬০ হাজার ছাড়িয়েছে।

করোনায় প্রাণহানি ও অসুস্থদের হিসাব রাখা আন্তর্জাতিক সংস্থা ওয়ার্ল্ডওমিটারের সবশেষ তথ্যানুযায়ী, রোববার সকাল ৮ টা পর্যন্ত ১ লাখ ৬০ হাজার ৭৫৭ জন মারা গেছেন করোনায়।২৩ লাখ ৩০ হাজার ৯৮৬ আক্রান্তের সংখ্যা।আর আক্রান্তদের মধ্যে সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৫ লাখ ৯৬ হাজার ৬৮৭ জন।

ওয়ার্ল্ডওমিটারের ওয়েবসাইটের তথ্যানুযায়ী, কোভিড-১৯ এ সবচেয়ে বেশি প্রাণহানি ঘটেছে এই ভাইরাসকে গুরুত্ব না দেয়া যুক্তরাষ্ট্রে। দেশটিতে ৩৯ হাজার ১৪ জনের মৃত্যু হয়েছে এ পর্যন্ত। এর পর দ্বিতীয় সর্বোচ্চ প্রাণহানির ঘটনা ঘটেছে ইতালিতে,২৩২২৭ জন। স্পেনে মারা গেছেন ২০৬৩৯ জন, যা তৃতীয় সর্বোচ্চ মৃত্যু।

ওয়ার্ল্ডওমিটারের তথ্য অনুযায়ী, করোনাভাইরাসে এ পর্যন্ত আক্রান্তদের মধ্যে বর্তমানে ১৫ লাখ ৭৩ হাজার ৫৪২ জন চিকিৎসাধীন এবং ৫৫ হাজার ২৬৫ জন (৪ শতাংশ) আশঙ্কাজনক অবস্থায় রয়েছেন।

এছাড়া ফ্রান্সে মারা গেছেন ১৮ হাজার ৬৮১, যুক্তরাজ্যে ১৫ হাজার ৪৬৪, বেলজিয়ামে ৫ হাজার ৪৫৩, ইরানে ৫ হাজার ৩১, চীনে ৪ হাজার ৬৩২, জার্মানিতে ৪ হাজার ৪০৫, নেদারল্যান্ডসে ৩ হাজার ৬০১, ব্রাজিলে ২ হাজার ২০১, ইন্দোনেশিয়ায় ৫৩৫, ভারতে ৪৮৮, দক্ষিণ কোরিয়ায় ২৩২, পাকিস্তানে ১৪৩, সৌদি আরবে ৯২, মালয়েশিয়ায় ৮৮, ও অস্ট্রেলিয়ায় ৬৯ জন।

গত বছরের ডিসেম্বরের চীনের উহান থেকে উৎপত্তি হওয়া প্রাণঘাতি করোনাভাইরাস বাংলাদেশসহ বিশ্বের ২১০টি দেশ ও অঞ্চলে ছড়িয়ে পড়েছে।

গত ১১ মার্চ করোনাভাইরাস সংকটকে মহামারি ঘোষণা করে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)। এই মহামারী বাংলাদেশেও থাবা বসিয়েছে।২১৪৪ জন আক্রান্ত হয়েছেন, মারা গেছেন ৮৪ জন। আর সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৬৬ জন।

ভিন্নবার্তা ডটকম/এসএস

সংবাদ সম্পর্কে আপনার মতামত দিন
আরো পড়ুুন