1. [email protected] : admin : jashim sarkar
  2. [email protected] : admin_naim :
  3. [email protected] : admin_pial :
  4. [email protected] : admin : admin
  5. [email protected] : Rumana Jaman : Rumana Jaman
  6. [email protected] : Saidul Islam : Saidul Islam
স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালককে ডা. জাফরুল্লাহর চিঠি - |ভিন্নবার্তা

স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালককে ডা. জাফরুল্লাহর চিঠি

vinnabarta.com
  • প্রকাশ : সোমবার, ৩১ আগস্ট, ২০২০, ১১:০৪ pm

স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. এবিএম খুরশীদ আলমকে চিঠি দিয়েছেন গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রর প্রতিষ্ঠাতা ও ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী। সোমবার বিকালে প্রতিষ্ঠানটির পক্ষ থেকে গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিজ্ঞপ্তিতে বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, গণস্বাস্থ্য নগর হাসপাতালে কেভিড-১৯ ও অন্যান্য রোগ নির্নয়ে মলিকিউলার ডায়াগনোসটিক সেন্টার আরটিপিসিআর পরীক্ষা এবং ব্লাড ট্রান্সফিউশন ও প্লাজমা সেন্টার চালুর বিষয়ে চিঠি প্রদান করা হয়েছে।

চিঠিতে বলা হয়, সোমবার দুপুর ১টার দিকে অধিদফতরের পরিচালক (হাসপাতাল ও ক্লিনিকসমূহ) গণস্বাস্থ্য নগর হাসপাতালে ফোন করেন। তিনি সংশ্লিষ্টদের জানান, যেহেতু আপনাদের অনুমোদন নাই তাই আরটিপিসিআর পরীক্ষা, ব্লাড ট্রান্সফিউশন ও প্লাজমা সেন্টার বন্ধ করবেন। আরপিটিসিআর ফর কোভিড-১৯ এবং ব্লাড ট্রান্সফিউশন ও প্লাজমা সেন্টারের জন্য আলাদা অনুমতি চেয়ে চিঠি দিতে হবে। অনুমোদতি হওয়ার আগে কাজ চালু রাখলে মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

চিঠিতে মহাপরিচালকের উদ্দেশে বলা হয়, গত ১২ আগস্ট তারিখে পরিচালক (হাসপাতাল ও ক্লিনিকসমূহ) জি আর কোভিড-১৯ আরটিপিসিআর পরীক্ষা এবং প্লাজমা সেন্টার কার্যক্রম চালুর জন্য ই-মেইলে চিঠি দেয়া হয়। কিন্তু আপনাদের পক্ষ থেকে সাড়া না পেয়ে ৩১ আগস্ট পুনরায় চিঠি দেই। উল্লেখ্য যে, গণস্বাস্থ্য নগর হাসপাতাল (নিবন্ধন কোড: HSM ৬৭৩১৬), গণস্বাস্থ্য ল্যাবরেটরী ও ডায়াগনোসটিক সেন্টার (নিবন্ধন কোড: HSM৩২৪৯৬ ), গণস্বাস্থ্য ব্লাড ব্যাংক অ্যান্ড ট্রান্সফিউসন সেন্টার নিবন্ধন কোড: HSM ০৫০৩৯), লাইসেন্স এর আবেদন আপনাদের বিবেচনাধীন আছে ।

ডা. জাফরুল্লাহ বলেন, অধিদফতরের পরিচালক (হাসপাতাল)-এর বক্তব্য জনস্বার্থবিরোধী ও অবিবেচনাপ্রসূত। তার বক্তব্য মুক্তিযুদ্ধের চেতনাবিরোধী। ১৯৭২ সালে বাংলাদেশ সরকারের অনুমোদনে গণস্বাস্থ্য জনহিতকর দাতব্য ট্রাস্ট হিসাবে নিবন্ধিত হয় এবং গণস্বাস্থ্য জনহিতকর ট্রাস্টকে ১৫-ডি-এর আওতায় সকলপ্রকার দান গ্রহণ ও আয়করমুক্ত সুবিধা দেন। সরকার গণস্বাস্থ্য জনহিতকর দাতব্য ট্রাস্টকে সকলপ্রকার দান গ্রহণ ও আয়কর মুক্ত সুবিধা দিয়েছেন। গণস্বাস্থ্য নগর হাসপাতাল, গণস্বাস্থ্য ল্যাবরেটরি ও ডায়াগনোসটিক সেন্টার, গণস্বাস্থ্য ব্লাড ব্যাংক অ্যান্ড ট্রান্সফিউশন সেন্টার গণস্বাস্থ্য জনহিতকর দাতব্য ট্রাস্টের অধীনস্থ সম্পূর্ণ অলাভজনক সংগঠন। স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ খাতে সফলতার জন্য বাংলাদেশের সর্বোচ্চ জাতীয় পুরস্কার ‘স্বাধীনতা দিবস পুরস্কার’ -এ ভূষিত করেছে।

গত ২৪ মে তারিখের স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনা অনুযায়ী, নিবন্ধিত দাতব্য প্রতিষ্ঠান হাসপাতাল হিসাবে আমরা বর্তমান কোভিড-১৯ মহামারী অবস্থায় আমরা আমাদের হাসপাতালে দেশের প্রচলিত নিয়মে দক্ষ ও অভিজ্ঞ বিশেষজ্ঞ, উন্নতমানের যন্ত্রপাতির সহায়তায় স্বল্প মূল্যে কোভিড-১৯ এর জন্য আরটিপিসিআর পরীক্ষা এবং ব্লাড ট্রান্সফিউশন ও প্লাজমা সেন্টার চালু করতে ইচ্ছুক। আশা করি আমরা আপনার কাছ থেকে যথাযথ সহায়তা এবং দ্রুত অনুমোন পাবো।
ভিন্নবার্তা ডটকম/এসএস

আরো পড়ুন

মাসিক আর্কাইভ

© All rights reserved © 2021 vinnabarta.com
Customized By Design Host BD