1. [email protected] : admin : jashim sarkar
  2. [email protected] : admin_naim :
  3. [email protected] : admin_pial :
  4. [email protected] : admin : admin
  5. [email protected] : Rumana Jaman : Rumana Jaman
  6. [email protected] : Saidul Islam : Saidul Islam
সিলমারা ব্যালট নিয়ে ছবি তুলে ভাইরাল ইউপি চেয়ারম্যান |ভিন্নবার্তা

সিলমারা ব্যালট নিয়ে ছবি তুলে ভাইরাল ইউপি চেয়ারম্যান

vinnabarta.com
  • প্রকাশ : সোমবার, ১ মার্চ, ২০২১, ০৯:৪৪ অপরাহ্ন

নির্বাচন কমিশনের বিধি অনুযায়ী, যে কোনো নির্বাচনে গোপন বুথে ঢুকে ব্যালট পেপারে সিল মেরে তা বাক্সে ফেলার কথা। কিন্তু এর উল্টোটি করলেন কুমিল্লার দেবিদ্বার উপজেলার গুনাইঘর (দক্ষিণ) ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আবদুল হাকিম। তিনি একই ইউনিয়নের আওয়ামী লীগের সভাপতি।

রোববার ওই উপজেলার চেয়ারম্যান পদে উপ-নির্বাচন চলাকালে এ ঘটনা ঘটে। ওই ইউপি চেয়ারম্যান ছবিটি তার নিজের ফেসবুকে পোস্ট করার পরই ভাইরাল হয়ে যায়। সোমবার বিকেলে বিষয়টি স্বীকারও করেন আবদুল হাকিম। জেলা নির্বাচন অফিস বলছে বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হবে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, রোববার দেবিদ্বার উপজেলা চেয়ারম্যান পদে ১১৪টি কেন্দ্রে ভোট অনুষ্ঠিত হয়। এদিন গুনাইঘর (দক্ষিণ) ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আবদুল হাকিম নিজ ইউনিয়নের মাশিকাড়া উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে ভোট দিতে যান। এ সময় তিনি বিধি ভেঙে নির্বাচনি কর্মকর্তারদের সামনেই সিলমারা ব্যালট পেপারের ছবি তুলে নিজ ফেসবুকে পোস্ট করেন। রোববার সকাল ১০টা ৪৩ মিনিটে পোস্ট করা ছবির ক্যাপশনে তিনি লেখেন, ‘আলহামদুলিল্লাহ। প্রাণের নৌকায় ভোট দিলাম।’

ব্যালট পেপার হাতে ছবি তোলার সময় তার গলায় আওয়ামী লীগের প্রার্থী আবুল কালাম আজাদের ছবি ও নৌকা প্রতীকের ৪ কালারের ফিতা ও ব্যাজ ঝুলছিল। তার সঙ্গে ছিলেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য বাদল মুন্সী ও ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক আমির হোসেন ভূইয়া। বাদল মুন্সীর হাতে সিল মারা ব্যালট পেপার ছিল।

এদিকে বিধি লঙ্ঘন করে দলীয় নেতাদের নিয়ে ভোট কক্ষে প্রবেশ এবং এভাবে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সিল মারা ব্যালটের ছবি তুলে তা ফেসবুকে পোস্ট করার বিষয়টি নিয়ে অনেকেই সমালোচনা করেছেন। স্থানীয় সাংবাদিক সাহিদুল ইসলাম লিখেছেন, ‘এখন তো আপনার বিরুদ্ধে মামলা হবে, ভোট একটি গোপন মতামত প্রকাশের মাধ্যম, প্রকাশ্যে ব্যালট প্রদর্শন আইনগত দণ্ডনীয় অপরাধ।’ লুৎফুর রহমান বাবুল নামের এক আওয়ামী লীগ নেতা লিখেছেন, ‘ছবিটি সুন্দর হয়েছে তবে…।’

নিজে ফেসবুক চালাতে পারেন না উল্লেখ করে বিকেলে আবদুল হাকিম বলেন, সঙ্গে থাকা দলের সিনিয়র দুই নেতার অনুরোধে তিনি ছবি তুলছেন। তার ভাতিজা ফয়সাল ছবিটি ফেসবুকে পোস্ট করেছে।

এ বিষয়ে সোমবার বিকেলে জেলার সিনিয়র নির্বাচনি কর্মকর্তা মো. জাহাঙ্গীর হোসেন বলেন, গোপন কক্ষে ব্যালট পেপারে সিল মেরে তা নির্ধারিত বাক্সে ফেলার বিধান আছে। সিলমারা ব্যালট নিয়ে প্রকাশ্যে ছবি তুলে তা ফেসবুকে পোস্ট করা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ। বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হবে।

ভিন্নবার্তা ডটকম/এন

আরো পড়ুন

মাসিক আর্কাইভ

© All rights reserved © 2021 vinnabarta.com
Customized By Design Host BD