1. [email protected] : admin : jashim sarkar
  2. [email protected] : admin_naim :
  3. [email protected] : admin_pial :
  4. [email protected] : admin : admin
  5. [email protected] : Rumana Jaman : Rumana Jaman
  6. [email protected] : Saidul Islam : Saidul Islam
জনরোষের মুখে লেবানন সরকার |ভিন্নবার্তা

জনরোষের মুখে লেবানন সরকার

vinnabarta.com
  • প্রকাশ : শনিবার, ৮ অগাস্ট, ২০২০, ১১:২৭ পূর্বাহ্ন

ঝুঁকি জেনেও অ্যামোনিয়াম নাইট্রেটের মতো মারাত্মক দাহ্য পদার্থ কেন বছরের পর বছর ফেলে রাখা হয়েছিল? তার জবাব চেয়ে লেবাননের রাজধানী বৈরুতে বিক্ষোভ করেছে হাজারও মানুষ। দেশটির পার্লামেন্টের কাছে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যার পর বিক্ষোভ শুরু হলে পুলিশ তাদের থামাতে টিয়ার শেল ব্যবহার করে। এ সময় পুলিশের সঙ্গে বিক্ষোভকারীদের সংঘর্ষ হয়। এতে বেশ কয়েকজন আহত হন। এছাড়া শহরের বেশ কয়েক জায়গায় বিক্ষোভ হয়।

পর্যবেক্ষকরা বলছেন, সরকারবিরোধী এ বিক্ষোভ সারা দেশে ছড়িয়ে পড়তে পারে। আর এর মধ্যদিয়ে বর্তমান সরকারের পতনও ঘটতে পারে। ইতোমধ্যে সরকারের প্রতি অনাস্থা জানিয়ে জর্ডানে লেবাননের রাষ্ট্রদূত পদত্যাগ করেছেন।

রাষ্ট্রদূত বলেছেন, রাজনৈতিক অবস্থার পরিবর্তন ছাড়া সংকট কাটিয়ে উঠতে পারবে না লেবানন।

বৈরুতের বর্তমান অবস্থাকে ভয়াবহ উল্লেখ করে জাতিসংঘ ও অন্যান্য আন্তর্জাতিক সংস্থা বলেছে, দেশটি স্বাস্থ্য ব্যবস্থা এতটাই দুর্বল যে, আহত লোকজন ঠিকমতো চিকিৎসা পাচ্ছেন না।

বৈরুতে এখনও উদ্ধার তৎপরতা চলছে। এতে লেবাননের বিভিন্ন সংস্থা ছাড়াও আন্তর্জাতিক বিভিন্ন সংস্থা অংশ নিয়েছে। এখনও অনেক মানুষ নিখোঁজ রয়েছেন বলে বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যম জানিয়েছে। নিখোঁজদের সন্ধানে স্বজনরা ছোটাছুটি করছেন। বিস্ফোরণে নিহতের সংখ্যা এ পর্যন্ত ১৫৭ জনে দাঁড়িয়েছে। আহত হয়েছেন ৫ সহস্রাধিক। আহতদের চিকিৎসা দিতে হাসপাতালগুলোকে হিমশিম খেতে হচ্ছে। ঘটনার তদন্তের স্বার্থে ১১৬ জনকে আটক করেছে কর্তৃপক্ষ। খবর বিবিসি, রয়টার্স, সিএনএন ও আলজাজিরার।

এদিকে বৈরুতের বিভিন্ন স্থানে বিক্ষোভ করেছে দেশটির সাধারণ জনগন। তারা রাস্তায় টায়ার রেখে আগুন জ্বালিযে দেন, দোকান ভাংচুর করেন, নিরাপত্তা বাহিনীকে লক্ষ্য করে পাথর ছোড়েন, সরকারবিরোধী নানা স্লোগান দেন। পার্লামেন্ট ভবনের কাছে অবস্থানরত বিক্ষোভকারীদের ওপর চড়াও হয় পুলিশ। তাদের ছত্রভঙ্গ করতে কাঁদানে গ্যাস ব্যবহার করে। এর মধ্যেই উভয়পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষে বেধে যায়। এতে বেশ কয়েকজন আহত হন। বিক্ষোভকারীদের দাবি- সরকারের দুর্নীতি, অব্যবস্থাপনা আর অবহেলার কারণেই এমন বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে।

অন্যদিকে সরকারের প্রতি অনাস্থা জানিয়ে পদত্যাগ করেছেন জর্ডানে নিযুক্ত লেবাননের রাষ্ট্রদূত ট্রেসি শামৌন। তিনি বলেছেন, এ ঘটনা চোখে আঙুল দিয়ে দেশটির নেতৃত্বে পরিবর্তনের প্রয়োজনীয়তা দেখিয়ে দিয়েছে। এর আগে এমপি মারওয়ান হামাদহ পদত্যাগ করেন। এছাড়া আরও দুই শীর্ষ সরকারি কর্মকর্তা পদত্যাগ করেছেন।

আরো পড়ুন

মাসিক আর্কাইভ

© All rights reserved © 2021 vinnabarta.com
Customized By Design Host BD