1. [email protected] : admin : jashim sarkar
  2. [email protected] : admin_naim :
  3. [email protected] : admin_pial :
  4. [email protected] : admin : admin
  5. [email protected] : Rumana Jaman : Rumana Jaman
  6. [email protected] : Saidul Islam : Saidul Islam
লকডাউন পার্টি নিয়ে রানীর কাছে ক্ষমা চেয়েছে ডাউনিং স্ট্রিট - |ভিন্নবার্তা

লকডাউন পার্টি নিয়ে রানীর কাছে ক্ষমা চেয়েছে ডাউনিং স্ট্রিট

vinnabarta.com
  • প্রকাশ : শুক্রবার, ১৪ জানুয়ারী, ২০২২, ০৮:৩১ pm

বৃটিশ প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় ডাউনিং স্ট্রিটে একাধিক পার্টি বিতর্ক নিয়ে উত্তপ্ত দেশটির রাজনীতি। এবার এ নিয়ে বৃটেনের রানীর প্রশাসনিক দপ্তর বাকিংহাম প্যালেসের কাছে ক্ষমা চেয়েছে ডাউনিং স্ট্রিট। রানী দ্বিতীয় এলিজাবেথের দাম্পত্য সঙ্গী প্রিন্স ফিলিপের অন্ত্যেষ্টিক্রিয়ার আগের রাতে ডাউনিং স্ট্রিটে পার্টি করেন কার্যালয়ের কর্মীরা। বৃটিশ গণমাধ্যম টেলিগ্রাফে প্রথম এই পার্টির কথা প্রকাশিত হয়। এতে বলা হয়, ২০২১ সালের ১৬ এপ্রিল পুরো রাতজুড়ে এই পার্টি চলেছিল। এ নিয়ে প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনের মুখপাত্র জানিয়েছেন, যখন জাতীয় শোকের সময় চলছিল তখন এ ধরনের পার্টি নিয়ে গভীরভাবে অনুতপ্ত হওয়া উচিৎ।

এদিকে ওই পার্টিগুলোতে বরিস জনসন ছিলেন না বলে জানা গেছে। যদিও তার কার্যালয়ে কোভিড-১৯ নিয়ম ভঙ্গের দায়ে প্রশ্নের মুখে পড়েছেন তিনি।

একের পর এক পার্টি বিতর্ক নিয়ে বিরোধী দলের তীব্র নিন্দার মুখে পড়েছেন বরিস জনসন। তারা ডাউনিং স্ট্রিটের আচরণ নিয়ে প্রশ্ন তুলছেন। সে সময় কোভিডের কারণে নানা কড়াকড়ি চলছিল বৃটেনে। ফলে রানীকেও প্রিন্স ফিলিপের অন্ত্যেষ্টিক্রিয়ায় একাই বসে থাকতে হয়েছিল। অথচ সেই একই সময়ে দুটি পার্টি আয়োজিত হয় প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে।
গত বছরের ১৬ এপ্রিল বৃটেনে ঘরের মধ্যে জড়ো হওয়ার উপরেও নিষেধাজ্ঞা আরোপিত ছিল। এ নিয়ে লেবার নেতা কিয়ের স্টারমার বলেন, এটিই প্রমাণ করে যে, বরিস জনসন কীভাবে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের অবমানানা করেছেন। এই কনজারভেটিভরা বৃটেনকে ডুবাচ্ছে। শুধু ক্ষমা চেয়ে প্রধানমন্ত্রী পার পাবেন না। বরিস জনসনের উচিৎ পদত্যাগ করা।
ভিন্নবার্তা ডটকম/এন

আরো পড়ুন

মাসিক আর্কাইভ

© All rights reserved © 2021 vinnabarta.com
Customized By Design Host BD