1. admin-1@vinnabarta.com : admin : admin
  2. admin-2@vinnabarta.com : Rumana Jaman : Rumana Jaman
  3. admin-3@vinnabarta.com : Saidul Islam : Saidul Islam
  4. bddesignhost@gmail.com : admin : jashim sarkar
  5. newspost2@vinnabarta.com : ebrahim-News :
  6. vinnabarta@gmail.com : admin_naim :
  7. admin_pial@vinnabarta.com : admin_pial :
যাচ্ছে ৩ সদেস্যের প্রতিনিধিদল

যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে সখ্য বাড়াচ্ছে বিএনপি

ভিন্নবার্তা প্রতিবেদক
  • প্রকাশের সময় : রবিবার, ১৮ জুন, ২০২৩ ১২:৩২ pm

কূটনৈতিক তৎপরতা আরও জোরদার করছে বিএনপি। কারণ, রাজপথের আন্দোলনের পাশাপাশি কূটনৈতিক মহলে শক্ত যোগাযোগে সুফল দেখছে দলটি। তাইতো বেশ কয়েক মাস ধরেই ঘন ঘন কূটনৈতকি মহলে দৌড়ঝাঁপ, বৈঠক ও আলোচনায় নিজেদের এগিয়ে রাখছে বিরোধী এ দলটি। কূটনৈতিক তৎপরতা আরো পোক্ত করতে আগামী ২৬ জুন বিএনপির ৩ সদেস্যের একটি প্রতিনিধি দল যুক্তরাষ্ট্র সফরে যাচ্ছে। বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরীর নেতৃত্বে প্রতিনিধি দলটি যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী (সেক্রেটারি অব স্টেট) অ্যান্টনি ব্লিংকেনের সঙ্গে বৈঠক করবে বলে নির্ভরযোগ্য সূত্র নিশ্চিত করেছে।

‘আটলান্টিক পার হয়ে আমেরিকা না গেলে কিচ্ছু যায় আসে না। পৃথিবীতে আরো অনেক মহাসাগর আছে, অনেক মহাদেশ আছে। আমরা সেসব মহাদেশের সঙ্গে বন্ধুত্ব করব’- মূলত প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার এমন বক্তব্যের পরে যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে নতুন সখ্য বাড়াতে উদ্যোগী হয়েছে বিএনপি। দলটি মনে করছে, নতুন ভিসানীতির টার্গেট সরকার। চাপের মুখেই বাধ্য হয়ে প্রধানমন্ত্রী এমন বক্তব্য দিয়েছেন। এই চাপ আরো বাড়াতে পারলে তত্ত্বাবধায়কের দাবি আদায়ের পথ আরো সুগম হবে। এমন নানা হিসাব কষেই যুক্তরাষ্ট্র সফরের বিষয়টি চূড়ান্ত করেছে বিএনপির শীর্ষ নেতৃত্ব।

আগামী নির্বাচন ঘিরে আন্তর্জাতিক বিশ্বের ভূমিকা কী? তাদের তোড়জোড় বিএনপির জন্য কি কোনো আশাব্যঞ্জক কিছু? জানতে চাইলে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, পশ্চিমা বিশ্ব ‘সিরিয়াসলি কনসার্ন’ বাংলাদেশের নির্বাচনের বিষয়ে। নিঃসন্দেহে গণতান্ত্রিক বিশ্ব চাইবে বাংলাদেশে স্বচ্ছ নির্বাচন হোক। নির্বাচন বিষয়ে এবার তাদের অভিমত একেবারেই স্পষ্ট।

২০১৪ সালের নির্বাচনকে ঘিরে জাতিসংঘ মহাসচিবের বিশেষ দূত তারনকোর সঙ্গে বৈঠকের বিষয়টি সবার জানা আছে। আওয়ামী লীগ মধ্যবর্তী নির্বাচনের কথা দিয়েও তখন বিশ্বাসঘাতকতা করেছে। আর বিএনপি আন্তর্জাতিক বিশ্বের ওপর নয়, জনগণের শক্তিতে বিশ্বাস করে। তাই জনগণের শক্তি নিয়েই এগিয়ে যাবে। এক্ষেত্রে গণতান্ত্রিক বিশ্বের ভূমিকা বা কনসার্ন যদি ‘পার্ট প্লে’ করে সেটা আমাদের জন্য পজেটিভ হবে।

সূত্র জানায়, গত ২৪ মে অ্যান্টনি ব্লিংকেন বাংলাদেশে যে নতুন ভিসানীতি ঘোষণা করেছেন তার প্রাথমিক টার্গেট আওয়ামী লীগ বলে মনে করছে বিএনপির শীর্ষ নেতৃত্ব। বিশেষ করে জাতিসংঘের মধ্যস্থতায় আওয়ামী লীগের সংলাপে বসার সাম্প্রতিক বক্তব্যে এটা খুবই স্পষ্ট। বিএনপি নেতাদের মতে- এটি শেখ হাসিনাকে ব্যক্তিগতভাবে বিপত্তিতে ফেলেছে। বিশেষ করে যখন তিনি ব্যাপক মানবাধিকার লঙ্ঘনের জন্য অভিযুক্ত বাংলাদেশি এলিট ফোর্স র‌্যাবের বিরুদ্ধে মার্কিন নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারের প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছিলেন।

জোরপূর্বক গুম, বিচারবহির্ভূত হত্যাকাণ্ড ও মানবাধিকার লঙ্ঘনের দায়ে ২০২১ সালের ডিসেম্বরে র‌্যাবের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে যুক্তরাষ্ট্র। তাই আগামী নির্বাচনেও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র সরকারের ওপর আরো কিছু চাপ দেবে এবং মার্কিন চাপে শেষ পর্যন্ত হয়তো বাংলাদেশে অবাধ সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের জন্য একটি তত্ত্বাবধায়ক সরকার প্রতিষ্ঠা হবে। এমন অবস্থায় যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে সম্পর্কের পারদ আরেকটু উঠিয়ে নিতে পারলে সেটা দলের জন্য ইতিবাচক হবে।

বিএনপির এক সিনিয়র নেতা বলেন, জাতিসংঘসহ বিদেশি সংস্থা ও রাষ্ট্রগুলো একটি দেশের নির্বাচন ঘিরে পরিস্থিতি ধাপে ধাপে গভীর পর্যবেক্ষণ করে। এ জন্য তারা নির্বাচনের আগে, নির্বাচনকালীন ও নির্বাচনপরবর্তী সময়কে ভাগ করে নেয়। এবারের যুক্তরাষ্ট্র সফরে নির্বাচনের আগে দেশের সার্বিক পরিস্থিতি তুলে ধরে বিএনপি অ্যান্টনি ব্লিংকেনের কাছে বাংলাদেশে সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন অনুষ্ঠানে সহায়তা চাইবে। এর আগেও আন্তর্জাতিক মহল বাংলাদেশসহ বিভিন্ন দেশে সহায়তা করেছে।

এ বিষয়ে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ও আন্তর্জাতিকবিষয়ক উইংয়ের প্রধান আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী বলেন, যুক্তরাষ্ট্র সফরের বিষয়ে আলোচনা চলছে। এখনো ফাইনাল হয়নি।

দূতাবাস ও বিভিন্ন দেশে সক্রিয় বিএনপি :
নির্বাচনের আগে তত্ত্বাবধায়ক সরকারের দাবি আদায়ে এক দফার আন্দোনের সঙ্গে তাল মিলিয়ে কূটনৈতিক সমর্থনকেও গুরুত্বপূর্ণ মনে করছে বিএনপি। তাইতো জাতিসংঘ, ইউরোপীয় ইউনিয়ন, যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্যসহ বেশ কয়েকটি আন্তর্জাতিক শক্তির সহায়তা পেতে মরিয়া দলটি। সম্প্রতি ঢাকায় কূটনীতিকপাড়ায় মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, কানাডা, জাপান, যুক্তরাজ্য, ইউরোপীয় ইউনিয়নসহ একাধিক দেশের কূটনীতিকদের সঙ্গে একান্ত বৈঠক করেছে বিএনপি। বৈঠকে বাংলাদেশের গণতন্ত্র রক্ষায় আগামী নির্বাচন কতটা সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ হওয়া প্রয়োজন তা কূটনৈতিক মহলে তুলে ধরছেন বিএনপির নেতারা। পাশাপাশি বাড়ানো হচ্ছে বিএনপির আন্তর্জাতিক কমিটির বহর। গত ৪ জুন নিউ ইংল্যান্ড (বোস্টন) বিএনপির বোস্টন কমিটির সভাপতি সৈয়দ বদরে আলমকে আন্তর্জাতিক কমিটিতে অন্তর্ভুক্ত করে চিঠি পাঠানো হয়।

জাতিসংঘকে চিঠি দেয়ার প্রস্তুতি চলছে :
গ্রহণযোগ্য নির্বাচন প্রশ্নে সৃষ্ট রাজনৈতিক সংকট সমাধানে সহায়তা চেয়ে শিগগিরই জাতিসংঘকে চিঠি দেবে বিএনপি। শেষ দুই জাতীয় নির্বাচনে জনগণের ভোটাধিকার হরণ করার পাশাপাশি আগামী সংসদের ভোটও একতরফা করতে সরকার নানামুখী ষড়যন্ত্র করছে বলে জাতিসংঘকে জানাবে দলটি। নির্দলীয় তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে নির্বাচন করার যৌক্তিকতাও চিঠিতে উল্লেখ করা হবে। এছাড়া বিরোধীদলের ওপর সরকারের দমনপীড়ন, সভা-সমাবেশে বাধার তথ্য-উপাত্ত তুলে ধরবে বিএনপি। দেশের গণতন্ত্র, মানবাধিকার ও আইনের শাসনের সুরক্ষায় জাতিসংঘকে ভূমিকা রাখার আহ্বান জানানো হবে। জাতিসংঘের পাশাপাশি ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ), কমনওয়েলথকেও একই বিষয়ে চিঠি দেয়ার প্রক্রিয়া চলছে। ২০১৮ সালের জাতীয় নির্বাচনের আগেও জাতিসংঘ, ইইউ ও কমনওয়েলথকে সুষ্ঠু নির্বাচনের সহায়তা চেয়ে চিঠি দিয়েছিল বিএনপি। আর ২০১৪ সালের ভোটের আগে নিরপেক্ষ নির্বাচনের জন্য জাতিসংঘের মধ্যস্থতা চেয়েছিল দলটি।

সূত্র জানায়, আন্তর্জাতিক উইংসহ দলটির দায়িত্বশীল নেতারা চিঠির খসড়া তৈরি করছেন। শিগগির দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের স্বাক্ষরিত ওই চিঠি সংস্থাগুলোর কাছে পাঠানো হবে। বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে ‘মিথ্যা মামলায়’ সাজা দিয়ে আগামী নির্বাচনও তাকে ছাড়াই সরকার করতে চায় বলে উল্লেখ করবে বিএনপি। চিঠিতে দুর্নীতি ও মানিলন্ডারিংয়ের মাধ্যমে হাজার হাজার কোটি টাকা পাচারের মাধ্যমে সরকারদলীয় নেতারা টাকার পাহাড় গড়ছেন বলেও অভিযোগ করা হবে।
ভিন্নবার্তা ডটকম/আরজে



আরো




মাসিক আর্কাইভ