1. [email protected] : admin : jashim sarkar
  2. [email protected] : admin_naim :
  3. [email protected] : admin_pial :
  4. [email protected] : admin : admin
  5. [email protected] : Rumana Jaman : Rumana Jaman
  6. [email protected] : Saidul Islam : Saidul Islam
মা কে দেখাশুনা না করার কারণ জানালেন মেয়ে নিজেই |ভিন্নবার্তা

মা কে দেখাশুনা না করার কারণ জানালেন মেয়ে নিজেই

vinnabarta.com
  • প্রকাশ : বুধবার, ৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ০২:২৯ পূর্বাহ্ন

বিনোদন ডেস্ক: সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের সুবাধে দ্রুতই সবার কাছে পরিচিত হয়ে ওঠেছেন রানু মারিয়া মণ্ডল। এখন ইন্টারনেট দুনিয়ায় সুপরিচিত তিনি। ভারতের বিখ্যাত কণ্ঠশিল্পী লতা মঙ্গেশকারের একটি গান কলকাতার একটি স্টেশনে গেয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হন তিনি।

এরপর ভারতের জনপ্রিয় শিল্পী তাকে প্লেব্যাকের সুযোগ দেন। এরই মধ্যে হিমেশের সুরে ৩টি প্লেব্যাক করে ফেলেছেন তিনি। এখন তিনি সেলিব্রিটি!

তবে সন্তান থাকা সত্ত্বেও কেন তাকে স্টেশনে ভিক্ষা করে জীবন ধারণ করতে হলো? কেন মায়ের জন্য এগিয়ে আসেননি রানুর মেয়ে এলিজাবেথ সাথী রায়? এসব নিয়ে এবার মুখ খুললেন রানুর মেয়ে নিজেই।

বীরভূমের সিউড়িতে থাকেন রানুর মেয়ে। এলিজাবেথ সাথী রায়ের কথায়, ‘আমি জানতামই না যে মা রেলস্টেশনে গান করতেন কারণ আমি নিয়মিত মাকে দেখতে যেতাম না। কয়েকমাস আগে আমি ধর্মতলায় গিয়েছিলাম এবং মাকে একটি বাসস্ট্যান্ডে বসে থাকতে দেখি। আমি মাকে বলি, এক্ষুণি বাড়ি যাও এবং ২০০ টাকাও দিই। আমি এক কাকার অ্যাকাউন্ট ব্যবহার করে যথাসম্ভব ৫০০ টাকা করে পাঠাতাম মাকে। আমি তালাকপ্রাপ্ত নারী এবং সিউড়িতে একটি ছোট মুদির দোকান চালাই।

পাশাপাশি ছেলেও একাই মানুষ করছি। ছোট ছেলের দেখাশোনা করি। নিজেকে অনেক সংগ্রাম করতে হয় আমার। তবুও আমি যতটুকু পারি মাকে দেখাশোনা করার চেষ্টা করি। আমি বেশ কয়েকবার মাকে বলেছি আমাদের সঙ্গে থাকো, কিন্তু তিনি আমাদের সঙ্গে থাকতে চান না। তবুও লোকেরা আমাকে দোষ দিচ্ছে। সবাই আমার বিরুদ্ধে একজোট হয়ে কথা বলছে। আমি এখন কার কাছে যাব?”

রানুর মেয়ের অভিযোগ এখানেই শেষ হয়নি। আরও বিস্ফোরক হয়ে তিনি বলেন, ‘অতীন্দ্র, তপন এবং শয়তান ক্লাবের অন্যান্য সদস্যরা আমাকে হুমকি দিয়েছে। মায়ের কাছে যাওয়ার চেষ্টা করলে আমার পা ভেঙে দেবে বলেছে। ওরা আমাকে ফোনেও মা’র সঙ্গে যোগাযোগ করতে দেয় না। এমনকি, আমার বিরুদ্ধে মায়ের মগজ ধোলাইও করছে। আমি অসহায় বোধ করি। তপন ও অতীন্দ্র খ্যাতি চায়, তাই ওরা আমাকে সরাচ্ছে। তপন তো আমার মায়ের কাছ থেকে টাকা নেয় রোজকারের জিনিস কিনে দেওয়ার অজুহাতে। মা’র অ্যাকাউন্ট থেকে ১০ হাজার টাকাও সরিয়েছে আর মায়ের জন্য কেবল একটা স্যুটকেস এবং কয়েকটা নাইটি কিনে দিয়েছে।’

অতীন্দ্র ও তপন এবং শয়তান ক্লাবের মাধ্যমেই রানু মণ্ডলের গান গাওয়ার ভিডিও ভাইরাল হয়।

এনআই/শিরোনামবিডি

আরো পড়ুন

মাসিক আর্কাইভ

© All rights reserved © 2021 vinnabarta.com
Customized By Design Host BD