1. [email protected] : admin : jashim sarkar
  2. [email protected] : admin_naim :
  3. [email protected] : admin_pial :
  4. [email protected] : admin : admin
  5. [email protected] : Rumana Jaman : Rumana Jaman
  6. [email protected] : Saidul Islam : Saidul Islam
ভারতের শ্রিংলার সঙ্গে বৈঠকের বিষয়বস্তু প্রকাশের দাবি বিএনপির - |ভিন্নবার্তা

ভারতের শ্রিংলার সঙ্গে বৈঠকের বিষয়বস্তু প্রকাশের দাবি বিএনপির

vinnabarta.com
  • প্রকাশ : বুধবার, ১৯ অগাস্ট, ২০২০, ০৮:৪০ অপরাহ্ন

ভারতের পররাষ্ট্রসচিব হর্ষ বর্ধন শ্রিংলার আকস্মিক ঢাকা সফরে সরকারের সঙ্গে যে আলোচনা হয়েছে তা জনগণের সামনে প্রকাশের দাবি জানিয়েছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান।

তিনি বলেন, সরকারের দায়িত্ব তাদের কী আলোচনা হলো, সেখানে সরকারের অবস্থান কী ছিল তা জনগণকে জানানো। কিন্তু এর আগেও অনেক আলোচনা হয়েছে জানানো হয়নি তা জনগণকে। এমনকি চুক্তি হয়েছে সেগুলো জনসম্মুখে প্রকাশ করা হয়নি। কিন্তু তারপরও আমরা আশা করবো, জনগণের অধিকার আছে জানার। পররাষ্ট্রনীতির ক্ষেত্রে সরকার কী করছে বা কী বলছে তা জানানোর দায়িত্ব সরকারের।

বুধবার সকালে রাজধানীর শেরেবাংলা নগরে বিএনপি প্রতিষ্ঠাতা প্রয়াত জিয়াউর রহমানের মাজারে শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে তিনি এ দাবি করেন। জাতীয়তাবাদী স্বেচ্ছাসেবক দলের ৪০তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে সংগঠনটির নেতাকর্মীদের নিয়ে তিনি সেখানে যান।

ভারতের পররাষ্ট্রসচিব হর্ষ বর্ধন শ্রিংলার আকস্মিক ঢাকা সফর বিএনপি কীভাবে দেখছে জানতে চাইলে নজরুল ইসলাম আরও বলেন, আমাদের পার্শ্ববর্তী দেশের পররাষ্ট্রসচিব আমাদের দেশে যেকোনো সময় আসতেই পারেন। কিন্তু তিনি এসে কী কথা বলেছেন, এটা ছিল গোপন। এখানে আপনারা উপস্থিত ছিলেন না, আমরা উপস্থিত ছিলাম না। কী আলোচনা হয়েছে এ সম্পর্কে আমরা ডিটেইলস জানিও না। পত্রপত্রিকায় যেটা দেখলাম সেটা হলো বন্ধুত্বের যে দুর্বলতা সেটা মেরামত করার জন্য উনি এসেছেন। বিএনপি পররাষ্ট্রনীতির ক্ষেত্রে সবার সঙ্গে বন্ধুত্ব কারো সঙ্গে বৈরীতা নয়- এ আদর্শে বিশ্বাস করে। বিএনপি সমমর্যাদার ভিত্তিতে প্রতিবেশীসহ সকল রাষ্ট্রের সঙ্গে সম্মানজনক সহযোগিতার সম্পর্কে বিশ্বাসী।

তিনি বলেন, আমরা বিশ্বাস করি, যে কারণেই তিনি এসে থাকুন না কেন। আমাদের সরকারে যারাই আছেন, জোর করে হোক, ভোট ছাড়া হোক। তাদের দায়িত্ব হলো দেশের স্বার্থ রক্ষা করা। আমরা আশা করবো, সরকার দেশের স্বার্থ রক্ষা করে পররাষ্ট্রনীতির পরিচালনা করবে এবং জনগণকে সকল বিষয় অবহিত করবে।

জিয়াউর রহমান ইতিহাসের ‘ফুটনোট’- আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের এমন বক্তব্যের সমালোচনা করে নজরুল ইসলাম খান বলেন, তার বক্তব্য এদেশের মানুষ রসিকতা কিংবা ভাঁড়ামি মনে করে। বাংলাদেশের মানুষ যার কণ্ঠে স্বাধীনতার ঘোষণা শুনেছেন তিনি হলেন শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমান। তিনি ২৫ মার্চ রাতে পাকিস্তানি সেনাবাহিনী থেকে বিদ্রোহ করে তাঁর কমান্ডারকে হত্যা করে চট্টগ্রাম দখল করার মাধ্যমে প্রথম সেক্টর কমান্ডার হিসেবে রণাঙ্গনে যুদ্ধ করেছেন। তিনি যদি অপশনাল হন তবে মূল কে? আর তখন ওবায়দুল কাদেরের অবস্থান কোথায় ছিল? সেটাও হয়তো তার পরিষ্কার করা দরকার।

নজরুল বলেন, আমরা জানি, মরহুম রাষ্ট্রপতি শেখ মুজিবুর রহমান ও তার পরিবারের হত্যার বিচার আদালতে হয়েছে। সেখানে শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানকে কেউ অভিযুক্ত করেনি এবং মামলার কোথাও তার নাম আসেনি। এখন সাজাপ্রাপ্ত আসামির ফাঁসির আগে জোরপূর্বক তার বক্তব্য নিয়ে তা অনৈতিকভাবে ভাইরালের মাধ্যমে অপপ্রচার চালানো সম্পূর্ণ রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত। শুধুমাত্র জাতিকে বিভক্ত করার জন্য এসব বক্তব্য দেয়া হচ্ছে। আমরা চাই দেশের সম্প্রীতি বজায় রাখার জন্য এসব নোংরা কাঁদা ছোড়াছুড়ি বন্ধ করুন।

এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব হাবিব উন নবী খান সোহেল, স্বেচ্ছাসেবক বিষয়ক সম্পাদক মীর শরফত আলী শপু, স্বেচ্ছাসেবক দলের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মোস্তাফিজুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক আব্দুল কাদির ভূইয়া জুয়েল, সহসভাপতি গোলাম সারোয়ার, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম ফিরোজ, সাংগঠনিক সম্পাদক ইয়াসিন আলী, কেন্দ্রীয় নেতা আমিনুল ইসলাম, সরদার নুরুজ্জামান, নজরুর ইসলাম প্রমুখ।

ভিন্নবার্তা/এসআর

আরো পড়ুন

মাসিক আর্কাইভ

© All rights reserved © 2021 vinnabarta.com
Customized By Design Host BD