শিরোনাম

বাসে শ্রমিককে ধর্ষণের পর হত্যার কথা স্বীকার আসামির

নিজস্ব প্রতিবেদক, ধামরাই

ঢাকার ধামরাইয়ে বাসে মমতা আক্তার নামে নারী শ্রমিককে ধর্ষণ ও হত্যার কথা স্বীকার করে আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দিয়েছে গ্রেফতার ধর্ষক সোহেল ওরফে ফিরোজ।

শনিবার (১১ জানুয়ারি) বিকেলে ঢাকা জেলার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট কোর্টে গ্রেফতার আসামির জবানবন্দির বিষয়টি নিশ্চিত করেন ধামরাই থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) দীপক চন্দ্র সাহা।

ওসি দীপক বলেন, ধামরাইয়ে মমতা আক্তার নামে একটি কারখানার শ্রমিক ধর্ষণের ঘটনার পরপর পুলিশ অভিযুক্ত বাসচালক সোহেল ওরফে ফিরোজকে উপজেলার জেঠাইল গ্রাম থেকে তাকে আটক করে পুলিশ।

পরবর্তীতে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে ও পরে আদালতে ১৬৪ ধারায় ওই নারীকে ধর্ষণের পর হত্যার কথা স্বীকার করে জবানবন্দি দেয় আসামি। পরে তাকে জেলহাজতে প্রেরণ করেন আদালত।

প্রসঙ্গত, শুক্রবার ভোর ৪টার দিকে ধামরাইয়ের ডাউটিয়া এলাকার প্রিতম সিরামিকসে কাজে যোগ দিতে ‍নিজ বাড়ি উপজেলার কাঁঠালিয়া গ্রামে কাওয়ালীপাড়া-বালিয়া আঞ্চলিক মহাসড়কে তার অফিসের বাসে ওঠেন। পরে সন্ধ্যায়ও সে বাসায় না ফিরলে রাতে তার পরিবারের সদস্যরা ধামরাই থানায় একটি জিডি করেন।

এঘটনার পর রাতেই কাঁঠালিয়া গ্রামে নিজ বাড়ি থেকে কিছু দূরে কাওয়ালীপাড়া-বালিয়া মহাসড়কের পাশে একটি জঙ্গল থেকে মমতার লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

আইআই/শিরোনাম বিডি

সংবাদ সম্পর্কে আপনার মতামত দিন
আরো পড়ুুন