1. admin-1@vinnabarta.com : admin : admin
  2. admin-2@vinnabarta.com : Rumana Jaman : Rumana Jaman
  3. admin-3@vinnabarta.com : Saidul Islam : Saidul Islam
  4. bddesignhost@gmail.com : admin : jashim sarkar
  5. newspost2@vinnabarta.com : ebrahim-News :
  6. vinnabarta@gmail.com : admin_naim :
  7. admin_pial@vinnabarta.com : admin_pial :

নীলফামারীকে তাগ লাগিয়ে সেইফ ফাউন্ডেশনের মেহমানখানা

ভিন্নবার্তা প্রতিবেদক
  • প্রকাশের সময় : রবিবার, ৯ আগস্ট, ২০২০ ৩:০৯ pm

শিমুল খান, নীলফামারী : ঈদ উল-আযহায় নীলফামারীতে ব্যতিক্রম এক কার্যক্রম উপহার দিলেন সেইফ ফাউন্ডেশন। দিনভর খাবার টেবিলে পোলাও-মাংস, ডিম, ডাল, মিষ্টি ও কোমল পানি। মেহমানখানারা এসে মন ভরে খেয়ে তৃপ্তি মিটায়। এমন আয়েজনে নীলফামারীকে এক প্রকার তাগ লাগিয়ে দিয়েছে সেইফ ফাউন্ডেশন।

ঈদের তৃতীয় দিনে দুপুর হতে বিকাল পর্যন্ত নীলফামারীর শেখ কামাল স্টেডিয়ামে সেইফ ফাউন্ডেশনের অর্থায়নে অসহায় দরিদ্র ও ছিন্নমূল মানুষদের জন্য মেহমানখানার আয়োজন করেন সেইফ ফাউন্ডেশন। সেই মাথে ঈদের আনন্দ ভাগাভাগি করেন।

ওই আয়োজনের প্রথম দিনের অতিথি ছিলেন ৬০০ জন। তিন দিনব্যাপী তাদের ওই মেহমানখানায় অতিথি হয়েছিলেন দুই হাজার ৫০০ জন। এসব অতিথি সকলেই নিম্ন আয়ের।

মেহমানখানায় আমন্ত্রিত অতিথি ছিলেন করোনা কালে ক্ষুদ্র ব্যবসা হারিয়ে বেকার হয়ে পড়া জেলা শহরের শাহিপাড়ার নজরুল ইসলাম (৬০)। তিনি এসেছিলেন তার আদরের ছোট সাত বছরের নাতিকে নিয়ে। খাবার খেয়ে নজরুল বলেন, ঈদের দিনে ভালো খাবার কপালে মিলেনি। নাতিটাকেও খাওয়াতে পারিনি। তাই নাতিটাকে নিয়ে আসলাম। অনেক দিন পর মনভরে ভালো খাবার খেলাম।

নীলফামারী শহরের রিক্সাচালক আক্কাস আলী (৩২) বলেন, করোনা দূর্যোগের পর থেকে খুব দূর্দিন যাচ্ছে আমাদের। এসময়ে ভালো খাবারতো দুরের কথা সাধারণ খাওয়াও পাইনি পেটপুড়ে। আজকে খেয়ে অনেক দিনের ভালো কিছু খাওয়ার সাধ পূরণ হলো।

একই কথা বলেন সেখানে আগত কাশেম (৪৫), আজাদ হোসেন (৫৫), ফখরুল হেসেনসহ (৩৫) অনেকে। তারা সকলে ঈদে ভালো খাওয়া জোটাতে না পেরে ঈদ আনন্দ থেকে ছিলেন অতৃপ্ত।

সেইফ ফাউন্ডেশনের প্রধান সম্বয়কারী রাসেল আমীন স্বপন বলেন,“ঈদ আনন্দ ভাগাভাগি করতে করতে আমাদের ওই আয়োজন। তিন দিনের আয়োজনে দুপুরের খাবার খাবেন দুই হাজার ৫০০ অতিথি। আর আমাদের আমন্ত্রিত অতিথি রিক্সাচালক, ভ্যানচালক, এতিম, ছিন্নমূল মানুষসহ নিম্ন আয়ের মানুষ। তালিকা তৈরী করে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে তাদেরকে। আমন্ত্রিত অতিথি সাথে নিয়ে আসতে পারবেন পরিবারের একজনকে। ৫ আগস্ট দুপুরের খাবারের পর সমাপ্ত হবে আমাদের ওই মেহমানখানা।

উল্লেখ্য, করোনা দূর্যোগকালে ওই সংগঠনটির আত্মপ্রকাশ ঘটে। এরপর থেকে মানুষের মাঝে স্বাস্থ সচেতনতা সৃষ্টি, ৪০ হাজার নিম্ন আয়ের মানুষের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ, গত রমজান মাসজুড়ে ইফতারী বিতরণ, ঈদের জামা-কাপড় বিতরণ, বন্যার্তদের সহযোগিতা, বৃক্ষরোপণ, বইপড়াসহ বিভিন্ন কার্যক্রম চালিয়ে আসছে সংগঠনটি। ঈদের আগে ৫৪১ অস্বচ্ছল পরিবারে প্রদান করা হয়েছে মাংস, চাল, আটাসহ রান্নার অন্যান্য উপকরণ। তাদের এসব কাজে সহযোগিতা করছেন নীলফামারী-২ (সদর) আসনের সংসদ সদস্য আসাদুজ্জামান নূর, নীলফামারী পৌরসভার মেয়র দেওয়ান কামাল আহমেদসহ বিভিন্ন স্বচ্ছল ও মানুষের সেবায় আত্মনিয়োগে সচেষ্ট ব্যক্তি।

ভিন্নবার্ত/এসআর



আরো




মাসিক আর্কাইভ