শিরোনাম
২৬ বছর আগের মামলায় যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত আসামির জামিন হলো নাজমে উঠেছে সৈয়দপুর পৌরসভা নির্বাচন; ত্রিমুখী লড়াইয়ের সম্ভাবনাধুনটে স্ত্রীকে হত্যা মামলায় স্বামীর বিরুদ্ধে চার্জশিটশাহজাদপুরে প্রখ্যাত দুই শহীদ মুক্তিযোদ্ধা হেলাল-ফরহাদের কবর সংস্কারে দাবি, অধ্যক্ষের না!আদালতে খুনিদের লোমহর্ষক জবানবন্দি থাকলেও বাদীর সঙ্গে ৫ লাখে আপোষের অভিযোগ !আ.লীগ নেতা দুই ভাইয়ের সাড়ে ৫ হাজার বিঘা জমি, ৫৫ বাস ক্রোকের নির্দেশধুনটে মেয়র ও কাউন্সিলরদের দায়িত্ব গ্রহন২৪ ঘণ্টায় করোনায় আরও ৫ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ৪১০জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষা ২৪ মে থেকে, ভর্তি কার্যক্রম ৮ জুন২৬ মার্চ থেকে চলবে ঢাকা-জলপাইগুড়ি ট্রেন

ধুনটে দালাল পোষা সেই ভূমি কর্মকর্তা ও অফিস সহায়ককে শোকজ

রফিকুল আলম, ধুনট (বগুড়া):

বগুড়ার ধুনট ইউনিয় ভূমি আফিসে দালাল পোষা উপ-সহকারী ভূমি কর্মকর্তা সাইউল হক ও অফিস সহায় মিজানুর রহমানকে কারণ দর্শানোর নোটিশ দেওয়া হয়েছে। সোমবার দুপুরের পর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) সঞ্জয় কুমার মহন্ত সাত দিনের মধ্যে জবাব চেয়ে তাদের নামে শোকজ নোটিশ দেন।

জানা গেছে, ধুনট ইউনিয়ন ভূমি অফিসে দীর্ঘদিন ধরে ভূমি কর্মকর্তার মতো চেয়ার-টেবিল পেতে কাজ করছে আব্দুস ছাত্তার নামে এক ব্যক্তি (দালাল)। গুরুত্বপূর্ণ নথি, সরকারি আসবাবপত্র সবই তার হাতে। অফিসের নথিপত্র ঘাঁটাঘাঁটি করেন তিনি। যেন ইউনিয়ন ভূমি (তহশিলদার) কর্মকর্তার কোনো কাজই নেই। পাশের চেয়ারে আয়েসি ভঙ্গিতে বসে থাকেন ভূমি কর্মকর্তা সানাউল হক। এটি নিত্য দিনের চিত্র।

ওই দালাল জমির নামজারি ও খাজনার জন্য আসা মানুষের কাছ থেকে অতিরিক্ত টাকা নিয়ে ভূমি অফিসের কর্মচারীর মতোই কাজ করে। এলাকার সাধারণ কৃষক ও জমির মালিকরা দালালকেই অফিসের কর্মচারী মনে করেন। অফিসের কর্মকর্তা-কর্মচারীর চেয়ে তাকে বেশি চেনে মানুষ। ফলে তারা ওই সব কাজে সরাসরি দালালের শরণাপন্ন হয়। ভূমি অফিসের সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীদের ছত্রছায়ায় ওই দালাল এ কাজ গুলো করেন।

এ বিষয়ে ২০ জানুয়ারী বিভিন্ন গণমাধ্যমে সচিত্র প্রতিবেদন প্রকাশ হয়। প্রকাশিত ওই প্রতিবেদনটি সরেজমিন তদন্ত করে সত্যতার প্রমান পাওয়ায় ইউনিয়ন উপ-সহকারী ভূমি কর্মকর্তা সাইউল হক ও অফিস সহায়ক মিজানুর রহমানকে কারণ দর্শানোর নোটিশ দেন ইউএনও।

এ বিষয়ে ধুনট ইউনিয়ন উপ-সহকারী ভূমি কর্মকর্তা সাইউল হক বলেন, শোকজ নোটিশ হাতে পেয়েছি। নির্ধারিত সময়ের মধ্যে সন্তোষ জনক জবাব দেওয়া হবে।

ধুনট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) সঞ্জয় কুমার মহন্ত বলেন, ইউনিয়ন উপ-সহকারী ভূমি কর্মকর্তা সাইউল হক ও অফিস সহায়ক মিজানুর রহমানের নিকট থেকে শোকজ নোটিশের সন্তোষ জনক জবাব না পেলে তাদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।
ভিন্নবার্তা ডটকম/এসএস

আরো পড়ুুন