শিরোনাম

চাঁদা না পেয়ে ঝুট ব্যবসা দখলচেষ্টা যুবলীগ নেতার

উপজেলা প্রতিবেদক, সাভার

সাভারের আশুলিয়ায় দাবিকৃত ১০ লাখ টাকা চাঁদা না পেয়ে অস্ত্রের মহড়ার মাধ্যমে এক ব্যবসায়ীর ঝুট ব্যবসা দখল চেষ্টার অভিযোগ উঠেছে যুবলীগের এক নেতার বিরুদ্ধে। অভিযুক্ত আশুলিয়া থানা যুবলীগের আহ্বায়ক কবির হোসেন সরকারের বিরুদ্ধে ইতোপূর্বে নাশকতা, হত্যাচেষ্টা, ঝুট ব্যবসা দখল ও চাঁদাবজিসহ প্রায় এক ডজন মামলা রয়েছে।

বৃহস্পতিবার রাতে আশুলিয়া থানায় লিখিত অভিযোগ করেন নিহান এন্টারপ্রাইজের স্বত্তাধিকারী ব্যবসায়ী মাহফুজ আহাম্মেদ।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, আশুলিয়ার বাইপাইল নতুন পাড়া এলাকার সেবল টেক্স নামে প্রতিষ্ঠান থেকে প্রায় আট মাস যাবৎ ওয়েস্টেজ মালামাল ক্রয়ের ব্যবসা করে আসছেন নিহান এন্টারপ্রাইজের মালিক মাহাফুজ আহম্মেদ। এ জন্য যুবলীগ নেতা কবির হোসেন সরকার ও তার অনুসারী প্রভাবশালী সন্ত্রাসী নজরুল ইসলাম, সোহাগ তালুকদার, মনির মন্ডল, ইলিয়াস, সালাম, সানোয়ার হোসেন এবং মনছুরদের প্রতি মাসে ৪০ হাজার টাকা চাঁদা আদায় করতো।

গতকাল বৃহস্পতিবার বিকেলে বাইপাইল এলাকার নিহার এন্টারপ্রাইজের গোডাউনে এসে যুবলীগ নেতা কবির হোসেন সরকার ও তার সন্ত্রাসী বাহিনী ব্যবসায়ী মাহফুজ আহাম্মেদের নিকট ১০ লাখ টাকা চাঁদা দাবী করেন। চাঁদা দিতে অপরাগতা জানালে অস্ত্র দিয়ে ব্যবসায়ী মাহফুজকে প্রাননাশ ও ব্যবসা দখলের হুমকি প্রদান করে সন্ত্রাসীরা। এসময় সন্ত্রাসীরা মাদক সেবন করে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে সেখান থেকে চলে যায়।

অভিযোগের ব্যাপারে আশুলিয়া থানা যুবলীগের আহŸায়ক কবির হোসেন সরকার বলেন, গত দুই বছর আগে সেবলটেক্স নামে ওই কারখানার ঝুট ব্যবসা তিনি মাহফুজসহ তার কয়েকজন যুবলীগ কর্মীদের নিয়ে দেন। তবে মাহফুজ পরবর্তীতে তার কোন কর্মীদের সাথে না রেখে একাই ব্যবসা পরিচালনা করেন। তাই ওই ব্যবসা এখন তার অন্য কর্মীদের দিবেন বলেও জানান তিনি।

এব্যাপারে আশুলিয়া থানার পরিদর্শক (অপারেশন্স) মোহাম্মদ জিয়াউল ইসলাম জানান, এ সংক্রান্ত বিষয়ে থানায় একটি লিখিত অভিযোগ হয়েছে। বিষয়টি তদন্তপূর্বক পরবর্তীতে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

আইআই/শিরোনাম বিডি

সংবাদ সম্পর্কে আপনার মতামত দিন
আরো পড়ুুন