শিরোনাম

করোনায় নিউইয়র্কে জরুরি অবস্থা জারি

চীন থেকে বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়া প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস প্রতিরোধে যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কে জরুরি অবস্থা জারি করেছে দেশটির সরকার। নিউইয়র্কের গভর্নর অ্যান্ড্রু কুমো শনিবার এক সংবাদ সম্মেলনে বলেন, করোনাভাইরাসে সৃষ্ট পরিস্থিতি সামাল দিতে নিউইয়র্কে জরুরি অবস্থা জারি করা হয়েছে।

স্থানীয় স্বাস্থ্য বিভাগগুলোকে সহযোগিতা করতে আমরা আরও বেশি স্বাস্থ্যকর্মী নিয়োগে কাজ করছি। তিনি বলেন, তিনি স্বাস্থ্য সেবাদানকারী কর্মীদের জন্য ৩০ মিলিয়ন ডলারের প্রতিরক্ষামূলক সরঞ্জাম কিনছেন।

করোনাভাইরাস নিয়ে বেশি আতঙ্কিত না হয়ে সবাইকে শান্ত থাকতে বলেছেন তিনি। একই সঙ্গে রাজ্যের কোথাও যেন বড় জমায়েত না হয়, সে ব্যাপারে সবাইকে সচেতন থাকতে বলেছেন।

কুমো জানান, করোনায় যুক্তরাষ্ট্রে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৪৩৭ ও মৃত্যুর সংখ্যা ১৯। এ ছাড়া ফ্লোরিডায় দুজনের মৃত্যু ঘটনা ঘটেছে। নিউইয়র্কে নতুন করে ২১ জনের শরীরে করোনার উপস্থিতি পাওয়া গেছে। এতে নিউইয়র্কে ৭৬ জনের আক্রান্তের খবর পাওয়া গেছে।

নিউইয়র্কের ওয়েচেস্টার কাউন্টিতে ৫৭ জন করোনায় আক্রান্ত হওয়ার খবর জানিয়ে সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, আমরা এখন ২৪ ঘণ্টা পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করছি।

গত মঙ্গলবার নিউইয়র্কের সেন্ট জনস এপিস্কোপাল হাসপাতালে পরীক্ষার পর এক ট্যাক্সিচালকের শরীরে করোনাভাইরাস ধরা পড়েছে। এর পর থেকে আতঙ্কিত হয়ে হাসপাতালটির ৪০ জন চিকিৎসক ও নার্স নিজে থেকেই কোয়ারেন্টাইনে চলে গেছেন। ওই ট্যাক্সিচালক এখন হাসপাতালের আইসোলেশনে আছেন।

এদিকে চীন থেকে ছড়িয়ে পড়া করোনাভাইরাসে বিশ্বজুড়ে মারা গেছেন ৩ হাজার ৬০০ জন। শুধু চীনেই মৃতের সংখ্যা ৩ হাজার ৯৭ জন। চীনের বাইরে নিহত হয়েছে ৫০৩ জন।

এ ভাইরাসে বিশ্বজুড়ে আক্রান্তের সংখ্যা ১ লাখ ৬ হাজার ১৬২ জনে দাঁড়িয়েছে। চীনে আক্রান্তের সংখ্যা ৮০ হাজার ৬৯৬ জন। চীনের বাইরে ২৫ হাজার ৪৬৬ জন। আক্রান্তদের মধ্যে ৬ হাজার ৩৫ জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। এখন পর্যন্ত ৬০ হাজার ১৯০ জন সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন।

সংবাদ সম্পর্কে আপনার মতামত দিন
আরো পড়ুুন