1. [email protected] : admin : jashim sarkar
  2. [email protected] : admin_naim :
  3. [email protected] : admin_pial :
  4. [email protected] : admin : admin
  5. [email protected] : Rumana Jaman : Rumana Jaman
  6. [email protected] : Saidul Islam : Saidul Islam
উপ-নির্বাচনে ইসি ভবনে অগ্নিকাণ্ডের প্রভাব পড়বে না |ভিন্নবার্তা

উপ-নির্বাচনে ইসি ভবনে অগ্নিকাণ্ডের প্রভাব পড়বে না

vinnabarta.com
  • প্রকাশ : সোমবার, ৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ০৫:১০ অপরাহ্ন

নিজস্ব প্রতিবেদক: রংপুর-৩ আসনের উপ-নির্বাচনে, নির্বাচন কমিশন (ইসি) ভবনে অগ্নিকাণ্ডের প্রভাব পড়বে না বলে জানিয়েছেন জাতীয় পরিচয়পত্র অনুবিভাগের মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোহাম্মদ সাইদুল ইসলাম। সোমবার অগ্নিকাণ্ডস্থল পরিদর্শন শেষে তিনি সাংবাদিকদের এ কথা জানান।

মোহাম্মদ সাইদুল ইসলাম বলেন, আশা করি, রংপুরের নির্বাচনে কোনো প্রভাব পড়বে না। এনআইডি উইংয়ের পক্ষ থেকে আমরা বলব, সেখানে (রংপুর-৩ আসনের উপ-নির্বাচন) ইভিএম ব্যবহারের চেষ্টা করব। আমরা সে ধরনের প্রস্তুতি গ্রহণ করেছি। তথ্য-উপাত্ত সংগ্রহ করে কমিশনে উপস্থাপন করব। কমিশন এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত দেবে।

জাতীয় পরিচয় নিবন্ধন অনুবিভাগের মহাপরিচালক বলেন, আগুনে সেখানে থাকা ব্যালট ইউনিট ক্ষতিগ্রস্ত হয়নি। পয়েন্ট অব ফায়ার যেটা দেখলাম, মেইনলি ক‌্যাবলের দিকে ফায়ারটা ছড়িয়েছে। এজন্য উপরের ক‌্যাবলগুলো পুড়েছে। যে এসিগুলো ছিল সেগুলো ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। ক্যাবলের বক্সগুলো ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। কিন্তু আমাদের ব্যালট ইউনিট, মনিটর, কন্ট্রোল ইউনিট- যেভাবে আশঙ্কা করেছিলাম, সে তুলনায় সেরকম কোনো ক্ষতিই হয়নি। ক্ষতির পরিমাণ খুবই নগণ্য।

তিনি বলেন, তবে এটা আমরা বলব যে, ফায়ার সার্ভিসের দ্রুত পদক্ষেপের জন্য এবং টিমওয়ার্কের জন্য এত বড় একটা ক্ষতির হাত থেকে আমরা বেঁচে গিয়েছি।

সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ইভিএম কোনোটা তিন দিন আগে এসেছে, এগুলো পর্যায়ক্রমে এসেছে। এখানে সাড়ে ৪ হাজার সেটের মতো ইভিএম রেখেছি। সেগুলো বিভিন্ন রুমে রয়েছে। যে রুমে আগুন লেগেছে সেই রুমে দুই মিটারের মধ্যে আমরা দেখলাম, কোনো কন্ট্রোল ইউনিট অথবা ব্যালট ইউনিট ক্ষতিগ্রস্ত হয়নি। যেটুকু ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে সেটুকু পানি দিয়ে নেভানোর কারণে, পানি যেহেতু স্প্রে করা হয়েছে, স্প্রে করার কারণে অতিরিক্ত পানিগুলো যাতে ব্যালট ইউনিটে ক্ষতিগ্রস্ত না করে সেজন্য আমরা ব্যবস্থা নিচ্ছি।

তিনি বলেন, নতুন বলে কোনো কিছু নেই। সবই তো আমাদের ইভিএম। যখন যেকোনো সেন্টারের জন্য, যেকোনো কেন্দ্রের জন্য, যেকোনো নির্বাচনে ব্যবহার করতে যাই, তখন আমরা প্রাথমিকভাবে বিএমপিএফে ডিমান্ড পাঠাই। সেই ডিমান্ড অনুসারে তারা আমাদেরকে সাপ্লাই করে। সাপ্লাই করার পর কোয়ালিটি চেকিং করি। চেকিং করে ফাইনালি আমাদের যে কারিগরি টিম রয়েছে তারা দেখে যে যেখানে নির্বাচন হবে সেই আসন এবং কেন্দ্র, সেই কেন্দ্রের সাথে বুথ আছে, তার সাথে এটা সামঞ্জস্য আছে কি না। তারপর আমরা কোয়ালিটি চেকিং করি, তারপরে কাস্টমাইজড করে সেগুলো আমরা পাঠিয়ে দেই। এটা একটা স্টেপ বাই স্টেপ অ্যাকশন। সেই অ্যাকশনের অংশ হিসেবেই আমরা এখানে মেশিনগুলো জমা করেছি। কোনো কাস্টমাইজড বা কোয়ালিটি চেকিং শুরু করিনি। আগামীকাল থেকে শুরু করার কথা ছিল।

সেখানে গুরুত্বপূর্ণ কোনো কাগজপত্র ছিল কি না, জানতে চাইলে তিনি বলেন, সেখানে কোনো কাগজপত্র ছিল না। যেখানে আগুন লেগেছে এবং তার পাশে যে রেডিয়াসটা প্লাস ক্যাবল পুড়েছে এবং পাশে এসিগুলো যে পুড়েছে এর পার্শ্ববর্তী এলাকা দেখলেই আপনারা বুঝতে পারতেন, কন্ট্রোল ইউনিট, ব্যালট ইউনিট পোড়ার তেমন কোনো কোয়েশ্চেন নেই। দুই মিটারের মধ্যে আমরা খুলে দেখেছি কন্ট্রোল ইউনিট, ব্যালট ইউনিট পোড়েনি। তবে আমরা আশঙ্কা করছি যে, পানির কারণে যাতে ব্যালটগুলো নষ্ট না হয়, এজন্য আমরা এখন সুপারিশগুলো কমিশনকে অবহিত করব এবং দ্রুত ব্যবস্থা নেব। যাতে আমাদের জাতীয় সম্পদগুলো নষ্ট না হয়।

যেখানে আগুন লেগেছে সেখানে ১ হাজারের মতো ইভিএম ছিল কি না, জানতে চাইলে তিনি বলেন, এত হবে না। আমরা আপনাদেরকে সঠিক তথ্য দেব।

প্রাথমিকভাবে আগুন লাগার কারণ সম্পর্কে জানতে পেরেছেন কি না, এ প্রশ্নের জবাবে ইসির অতিরিক্ত সচিব মো. মোখলেছুর রহমান বলেন, ওখানে যেহেতু কেউ বসবাস করে না, সেখানে কোনো হিটার নেই, কাজেই বিদ্যুত ছাড়া অন্য কিছু তো দেখছি না।

এনআই/শিরোনাম বিডি

আরো পড়ুন

মাসিক আর্কাইভ

© All rights reserved © 2021 vinnabarta.com
Customized By Design Host BD