শিরোনাম

আশুলিয়ায় যুবলীগ নেতার বিরুদ্ধে ফের লুটপাট-দখলের মামলা

উপজেলা প্রতিবেদক, সাভার

সাভারের আশুলিয়ায় দোকান-পাট ভাঙচুর করে ৭৬ লাখ ৯২ হাজার টাকার মালামাল লুট ও মার্কেট দখল করার অভিযোগে আবারো থানা যুবলীগের যুগ্ম-আহ্বায়কসহ ১৪ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে। এর আগে গত ২১ অক্টোবর রাতে মাকসুদা বেগম নামের এক নারীর মালিকানাধীন মার্কেট দখলের অভিযোগে ওই যুবলীগ নেতাকে পুলিশ গ্রেফতার করলেও পরদিন জামিনে মুক্তি পায় সে।

রবিবার (২৭ অক্টোবর) রাত ১০টার দিকে এম এ খান মার্কেটের মালিক আলমগীর খান বাদী হয়ে মামলাটি দায়ের করেন। মামলায় আশুলিয়া থানা যুবলীগের ১নং যুগ্ন আহ্বায়ক ও ধামসোনা ইউপির ৭নং ওয়ার্ড সদস্য মঈনুল ইসলাম ভুইয়াকে প্রধান আসামী করে আরো তিন জনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাত ১০/১২জনকে আসামী করা হয়েছে।

মামলা সুত্র জানায়, বাইপাইল এলাকায় ৩৯ শতাংশ জমি ক্রয় করে এম এ খান নামের একটি মার্কেট বানিয়ে কাঁচা-পাকা মালের আড়ৎ হিসেবে ভাড়া দিয়ে আসছিলেন জমির মালিক। গত কয়েক মাস যাবৎ যুবলীগ নেতা তার লোকজন নিয়ে ওই মার্কেট দখল করার পায়তার করে আসছে। বিভিন্ন সময়ে মার্কেটের আড়ৎদারদের মারধর করে তাদের মালামাল লুটপাটও করে নেয়। এক পর্যায়ে গত (৬ সেপ্টেম্বর) শুক্রবার যুবলীগ নেতা দেশীয় অস্ত্রসস্ত্রে সজ্জিত হয়ে তার বাহিনী নিয়ে এসে ওই মার্কেটে হামলা চালায়। এসময় বিভিন্ন আড়ৎদারদের মারধর করে ৭৬ লাখ ৯২ হাজার টাকার মালামল লুটপাট করে নিয়ে যায়।

পরে এ ঘটনায় মার্কেটের মালিক আলমগীর খান বাদী হয়ে রবিবার রাতে আশুলিয়া থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করে আশুলিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রিজাউল হক দিপু বলেন, লুটপাট, ভাঙচুর ও মার্কেট দখলের চেষ্টার অভিযোগে যুবলীগ নেতাসহ চার জনের নামে মামলা দায়ের করা হয়েছে। এছাড়াও অভিযুক্তদের গ্রেফতারের জন্য অভিযান অব্যাহত রয়েছে বলেও তিনি জানান।

এনএম/শিরোনাম বিডি

সংবাদ সম্পর্কে আপনার মতামত দিন
আরো পড়ুুন