1. [email protected] : admin : jashim sarkar
  2. [email protected] : admin_naim :
  3. [email protected] : admin_pial :
  4. [email protected] : admin : admin
  5. [email protected] : Rumana Jaman : Rumana Jaman
  6. [email protected] : Saidul Islam : Saidul Islam
আবরার হত্যাকারীদের সর্বোচ্চ শাস্তি চায় ছাত্রলীগ |ভিন্নবার্তা

আবরার হত্যাকারীদের সর্বোচ্চ শাস্তি চায় ছাত্রলীগ

vinnabarta.com
  • প্রকাশ : বুধবার, ৯ অক্টোবর, ২০১৯, ০৩:৫২ অপরাহ্ন
ফাইল ছবি

বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদের খুনিদের দ্রুত গ্রেপ্তার ও সর্বোচ্চ শাস্তির দাবি করেছে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ।

বুধবার (৯ অক্টোবর) ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মধুর ক্যান্টিনে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলেন এই কথা জানান ছাত্রলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয়। এ সময় শের-ই-বাংলা হল প্রশাসনের গাফিলতির তদন্তের দাবি জানান।

আবরার হত্যাকাণ্ডের পরিপ্রেক্ষিতে সংগঠনের নেওয়া নানা পদক্ষেপের পাশাপাশি সংগঠনের দাবিও তুলে ধরেন সভাপতি জয়।

ছাত্রলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি বলেন, ‘আমরা দাবি জানাই দ্রুততম সময়ের মধ্যে এই হত্যাকাণ্ডের বিচার প্রক্রিয়া সম্পন্ন করার জন্য। আবরার হত্যা মামলাটি দ্রুত বিচার আইনের আওতায় এনে এবং হত্যাকাণ্ডের সাথে জড়িত প্রত্যেকের যেন সর্বোচ্চ শাস্তি নিশ্চিত করা সম্ভব হয় সে উপযোগী করে পুরো মামলাটি পরিচালনা করা হয়।’

গত রবিবার দিবাগত মধ্যরাতে বুয়েটের সাধারণ ছাত্র ও বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ ফাহাদকে শেরেবাংলা হলের দ্বিতীয় তলা থেকে অচেতন অবস্থায় উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে নিয়ে যান। সোমবার সকাল সাড়ে ছয়টার দিকে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। পরে ময়নাতদন্ত শেষে সংবাদ সম্মেলনে ঢামেক ফরেনসিক মেডিসিন বিভাগের প্রধান ডা. মো. সোহেল মাহমুদ বলেন, বাঁশ বা স্ট্যাম্প দিয়ে পেটানো হয়ে থাকতে পারে বুয়েট ছাত্র আবরার ফাহাদকে। এর ফলেই রক্তক্ষরণ বা পেইনের (ব্যথা) কারণে ফাহাদের মৃত্যু হয়েছে।

ফেসবুকে স্ট্যাটাস দেওয়ায় ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা আবরারকে পিটিয়ে হত্যা করেছে বলে জানা গেছে। চাঞ্চল্যকর এই হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর হাতে এ পর্যন্ত যে ১৩ জন গ্রেপ্তার হয়েছে তাদের অধিকাংশই ছাত্রলীগের নেতাকর্মী।

আবরারকে নির্যাতনের সময় নেতাকর্মীরা ‘মদ্যপ’ অবস্থায় থাকায় ১১ জনকে সংগঠন থেকে বহিষ্কারও করেছে ছাত্রলীগ।

ঘটনার পরপরই ছাত্রলীগের পক্ষ থেকে দ্রুত সাংগঠনিক পদক্ষেপ নেওয়া হয় জানিয়ে সংগঠনটির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি জয় বলেন, ‘সবপ্রকার পরিচয়ের ঊর্ধ্বে উঠে হত্যাকাণ্ডে জড়িতদের বিচারের দাবি জানিয়ে আনুষ্ঠানিক শোক প্রকাশ ও নিন্দা জানানো হয়েছে। দুই সদস্য বিশিষ্ট একটি সাংগঠনিক তদন্ত কমিটি গঠন এবং কমিটিকে ২৪ ঘণ্টার ভিতর রিপোর্ট জমাদানের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।’

আবরার হত্যার বিচারের দাবিতে বুয়েটে বিক্ষোভ মিছিল এবং অবস্থান কর্মসূচি পালন করছেন শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা। আজও তা চলছে। এছাড়া খুনিদের বিচারের দাবিতে বিক্ষোভ করছে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা।

আইআই/শিরোনাম বিডি

আরো পড়ুন

মাসিক আর্কাইভ

© All rights reserved © 2021 vinnabarta.com
Customized By Design Host BD